Wednesday, March 13, 2013

উপরে উপরে হেফাজত, ভিতরে শুধু জামাত শিবির।।



যখন মসজিদের ভিতরে আগুন লাগানো হয়, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

যখন মসজিদে ককটেল নিয়ে ঢুকা হয়, আল্লাহর ঘরে সাংবাদিকদের নির্বিচারে মারা হয়, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

যখন আল্লাহ'র ঘরের টাইলস ভাঙ্গা হয়, ইট পাথর স্তুপ করা হয় মারামারির জন্য, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

যখন নামাজের জায়নামাজে আগুন লাগানো হয়, মসজিদের ভিতরে কিতাব-কোরআন পুড়ানো হয়, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

যখন ইসলামের রাজনীতির নামে রাস্তায় নির্বিচারে গাড়ি ভাংচুর করা হয়, হরতালের নামে গাড়িতে আগুন লাগিয়ে বাবার সামনে ছেলেকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারা হয়, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

যখন আলেমদের হত্যা করার পরিকল্পনা করা হয়, আলেমদের অপমান করা হয়, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

যখন মসজিদের মাইক দিয়ে একজন রাজাকারকে চাঁদে দেখা যাওয়ার গুজব রটানো হয়, মাইকে ঘোষণা দিয়ে বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুন লাগানো হয়, তখন ইসলামের কোন অবমাননা হয় না, তাই হেফাজতীরা চুপ থাকেন।

কিন্তু যখন কোন মারামারি-কাটাকাটি ছাড়া অহিংস আন্দোলনের মাধ্যমে 'যুদ্ধাপরাধীদের' বিচার চাওয়া হয়, ইসলাম অবমাননাকারী দলকে নিষিদ্ধ করার দাবী জানানো হয়, তখন 'হেফাজতী'দের গায়ে আগুন লাগে, তখন তাদের মনে হয় ইসলামের 'অবমাননা' হচ্ছে। বাকি সময় তারা চোখে কালো কাপড় বেধে রাখে, দেখেও না দেখার ভান করে থাকে। কারণ যাদের নুন খাই, তাদের তো গুণ গাইতেই হবে।

কি আর বলব,
উপরে উপরে হেফাজত,
ভিতরে শুধু শিবির আর জামাত!!!

যদি আমার কথাগুলো মিথ্যা হয়, কিংবা মিথ্যা প্রমাণ করতে চাইয় কেউ, তাহলে কাল থেকে হেফাজতে ইসলামকে ''যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি'' আর ''ইসলাম অবমাননাকারী জামাত শিবির নিষিদ্ধের দাবীতে'' তাদের নিজেদের আন্দোলন দেখতে চাই।

হূম হেফাজতে ইসলাম, ইসলামের দোহাই দিয়ে গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন চট্টগ্রামে বন্ধ করালেন!!! এবার আপনারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার আর জামাত- শিবিরের ইসলাম অবমাননার বিচার চেয়ে একটা সমাবেশের ডাক দেন দেখি! প্রমাণ করে দেন, মোল্লার দৌড় আসলে মসজিদ পর্যন্ত নাকি অন্য কোথাও!!!

নাকি জামাতের কাছ থেকে টাকা খেয়ে আপনরাও তাদের মত সেই 'ইসলাম'কেই ঢাল বানালেন?
নাহলে মহান আল্লাহ ইসলাম নিয়ে ব্যবসা আর মিথ্যা রটানোর জন্য জামাত শিবির আর হেফাজতিদের বিচার করবেন।

অভিশাপ দিয়ে রাখলাম, আল্লাহর দরবারে বিচার দিয়ে রাখলাম।

আল্লাহ'র কাঠগড়ায় সবাইকেই দাঁড়াতে হবে।.. নিশ্চয়ই আল্লাহ আমাদের সহাই করবেন।।



 

0 comments:

Post a Comment