Wednesday, February 20, 2013

কথিত ইসলামী দল জামাত- শিবিরের ইসলামের নামে মিথ্যাচার সমগ্র :@

আল্লাহর আইন, ইসলাম বুকে ধারণ করে রাজনীতি, কোরআন শরীফ, ঈমানের পথ ইত্যাদি বুলি আউরিয়ে রাজনীতি যারা করে তাদের সচেতন মিথ্যাচার দেখুন - - -

শাহবাগ আন্দোলনের শুরুর মুহুর্ত থেকে এই আন্দোলেনের পাশে ছিলাম।। যেহতু চট্টগ্রামের একজন ছেলে আমি তাই চট্টগ্রামের গণজাগরণ মঞ্চে যাওয়া হয় সবসময়।। সারাদিন সেখানে থেকে তাদের সাথে রাজাকারের ফাঁশির দাবি করলেইও বাসা থেকে রাত্রে কোথাও থাকা সাপোর্ট না করার কারনে, সবসময়  রাত্রে বাসায় চলে আসি।।

একদিন সকালে ফেসবুকে হঠাৎই এ ছবিটা দেখে আঁতকে উঠি! শাহবাগে তরুনী ধর্ষণ! সেখানে যারা-যারা ছিলো অনেককেই ব্যাক্তিগতভাবে এবং অনলাইন সম্পর্কের জেরে চিনি, ভয়ংকর এ সংবাদ শুনে খুলে দেখলাম নিচের ছবিটা - - -






Yasin Arafath (Profile Link) নিকের ভদ্রলোক এ ছবি(খবর) শেয়ার দিয়েছেন  এ খবরের সূত্র দেখলাম কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা। টাশকি খাওয়ার মতোই ব্যাপার! দেশের এতো পত্রিকা থাকতে, এমনকি শাহবাগ আন্দোলন যাদের বিরুদ্ধে তাদের পত্রিকা যেমন, দৈনিক সংগ্রাম, নয়া দিগন্ত, আমার দেশে এ খবর না প্রকাশ করে আনন্দবাজার প্রকাশ করতে যাবে কেন? ক্লিক করলাম ভদ্রলোকের দেয়া লিঙ্কে - ক্লিক করুনঃ

ভেসে উঠলো নিচের এই চিত্র -




ভয়ংকর মিথ্যা কিছু কথাকে টাইপ করে ইমেজ বানিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকার নামে ছেড়ে দেয়া হলো শাহবাগে আন্দোলনকারীদের ধর্ষক সাজিয়ে! ''ধর্মীয় রাজনীতিবিদ'' বলে কথা! :P

পরদিন দেখলাম এক পেইজ শেয়ার দিল এই ছবিটা।।









গলায় দড়ি দিয়ে মরে গেছে বলা হচ্ছে ছবির যে ছেলেটা তাকে অনেকেই চেনে। সবাই ওকে ডাকে 'দুখু সুমন' বলে। জাহাঙ্গীরনগর থিয়েটারে নাটক করে। এডিট করা উপরের ছবিটা বানানো হয়েছে নিচের ছবিটা থেকে - - -







কীসব প্রচন্ড মিথ্যার বেশাতি খুলে বসেছে ইসলামী ভাবধারী বলে কথিত সংগঠন জামাত-শিবির চক্র!

একই সময়ে পাবলিকের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে নেয়ার উদ্দেশ্যে ফেসবুক, বাংলাসংবাদ টুয়েন্টিফোর সহ বিভিন্ন জায়গায় ছড়ানো হলো নিচের ছবিটি - - - ছবিটি দেখার জন্য ক্লিক করুন এইখানে






উপরের ছবিটা আসলে বানানো হয়েছে নিচের এ ছবিটি থেকে - - -





এবার আসুন পাকিস্তান পুলিশের একটা ছবি পোস্ট দেখি ক্লিক করুন এইখানে  - - -







এ ছবিটাকে মেরে দিয়ে বানানো হলো এ ছবি - - -





শাহবাগ প্রজন্ম চত্বরের একটা ছবি দেখি - - -






এর সাথে মেশানো হল এই ছবিটির অংশবিশেষ - - -




মিশিয়ে শাহবাগকে সেক্স-জোন বানানো হলো এ ছবিটিতে - - -




শাহবাগের ছবি হিসেবে পোস্ট দেয়া হলো এ ছবিটা - - -





উপরের ছবিটাকে একটা ফানি ছবি হিসেবে অনেকদিন আগেই নানান জায়গায় দেখেছি! একে শাহবাগের ছবি ঘোষণা দেয়া হলো! তাইলে এই পোস্টের লিঙ্ক  ক্লিক করুন  যে ২০১২ সালের আগষ্টে একই ছবি এসেছে!

শাহবাগ আন্দোলনের অন্যতম নেতা ইমরান এইচ সরকারের ছবি পাশে বসিয়ে পোস্ট করা হলো  এ ছবিটি - - -







অথচ এটা একটি আপত্তিকর ভারতীয় সাইটে DR. SHEETAL AND ANAND SEX AT MUMBAI MEDICAL COLLEGE শিরোনামে ২০০৯ সালের সেপ্টেম্বরে পোস্ট হয়েছে ভিডিওটির দেখার জন্য ক্লিক করুন এইখানে ,

জামাত-শিবির এসব পর্ন সাইটে ভালোই নজর রাখে দেখা যায় :P :D

 কাছাকাছি চেহারা মিলানোর জন্যে এসমস্ত ছবি বাছাই করতে প্রয়োজনীয় দীর্ঘ অভিজ্ঞতা তাদের রয়েছে।

ছবি দেখুন - - -




ক্রমাগত ঘোষণা দেয়া হচ্ছে শাহবাগের সব মানুষ নাস্তিক, এরা আল্লাহ-খোদা মানে না, ব্যাভিচার করে বেড়ায় ইত্যাদি। ইসলাম নিয়ে প্রতারক গোষ্ঠীর 'সব নাস্তিক' প্রচারের কিছু প্রমাণ পাওয়া যায় কিনা দেখি। শাহবাগের সবাই ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক হলে এরা কারা - - -





শাহবাগের সবাই ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক হলে এরা কারা - - -





শাহবাগের সবাই ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক হলে এরা কারা - - -





প্রেস ক্লাবের সবাই ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক হলে এরা কারা - - -





শাহবাগের সবাই ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক হলে ইনি কে - - -






শাহবাগ আসলে কোন রাস্তা নয়, একটা মাঠ, দেখুন না তাদের শেয়ার দেয়া একটা ছবি ক্লিক করুন এইখানেঃ   হলো শাহবাগের ঘাস-মাটির মাঠে বসে কেমন নেশা করছে কতিপয় নেশারু - - -






এসব প্রকান্ড মিথ্যাচার কি কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা? কতিপয় বিপথগামী শিবির কর্মীর দুষ্টুমী? না, তারা প্রাতিষ্ঠানিকভাবেই লালন করে এহেন মিথ্যাচারী মনোভাব। এদের রাজনীতির মুল অস্ত্র মিথ্য রটানো, প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কুৎসা প্রচার করা। কুৎসাকারী না হলে কোন ইসলামপ্রেমী মুসলমান কাবা শরীফ নিয়ে মিথ্যা কথা বলে? আমার দেশ পত্রিকায় ৬ ডিসেম্বর ২০১২ তে প্রকাশিত একটি রিপোর্ট দেখুন - - -





একই দিনে দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার একটি রিপোর্ট দেখুন - - -






এবার এই ছবির উৎস দেখুন লিঙ্ক এইখানে , ১৮ অক্টোবর ২০১২ তে প্রকাশিত কাবার গিলাফ পরানোর সময় তোলা ছবিটিকে একটি আরবি সাইট থেকে নিয়ে বাংলাদেশের রাজাকারদের বাঁচাতে মানববন্ধন নাম দেয়া হয়েছে দেশের দুইটা জাতীয় দৈনিকে - - -







অনেক কিছু তুলে ধরলাম তারপর ও যদি আপনারা বলেন জামাত শিবিরের লোকেরা ধর্ম নিয়ে কথা বলতেসে।। তাহলে আমি বলব, এই জামাত শিবির রাজাকার রা ইসলাম কে ভালবাসে না। তারা শুদু ইসলাম কে তাদের ঢাল হিসেবে ব্যাবহার করে ঠিক এরকম ভাবে।।




অনেক কিছু তুলে ধরলাম, এবং অনেক বড় বড় কথা বলে ফেললাম আর কিছু বলার নেই।। আমার কথা আমি শেষ করব একটাই মাত্র স্লোগান দিয়েঃ

“জামাত শিবির রাজাকার, এই মুহুরতে বাংলা ছাড়।।
পাকিস্তানের বাচ্চারা, পাকিস্তানে ফেরত যা।।
পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা পাকিস্তানে ফেরত যা।।

রাজাকার এই বাংলা থেকে নিপাত হবেই হবে...


জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, জয় শাহবাগ, জয় তারুণ্য।।


0 comments:

Post a Comment